আজ ২২শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৫ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

ধোপাছড়িতে ৪কোটি ১২লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত জিরোবুক সেতু উদ্ভোধন


মোঃ কামরুল ইসলাম মোস্তফা, চন্দনাইশঃ

চন্দনাইশ উপজেলার পাহাড় বেষ্টিত দুর্গম ধোপাছড়ি ইউনিয়নের চিরিংঘাটার জিরোবুক এলাকায় দুই পাহাড়ের মধ্যে একটি পাহাড়ি ছড়ার ওপর ৪ কোটি ১২ লাখ ৪ হাজার ৮৭৬ টাকা ব্যয়ে নির্মিত জিরোবুক সেতুর উদ্বোধন করা হয়েছে। রবিবার (১৮ ডিসেম্বর) দুপুরে সেতুটির উদ্ভোধন করেন চট্টগ্রাম-১৪ আসনের সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব মো. নজরুল ইসলাম চৌধুরী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন, চন্দনাইশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাছরীন আক্তার, ধোপাছড়ি ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল আলীম, হাশিমপুর ইউপি চেয়ারম্যান এডভোকেট খোরশেদ বিন ইসহাক, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর চন্দনাইশের উপসহকারী প্রকৌশলী আবুল কালাম, দোহাজারী পৌরসভা আওয়ামী লীগ সভাপতি মোহাম্মদ আবদুল শুক্কুর, সহ-সভাপতি এসএম জামাল উদ্দিন মেম্বার, উপজেলা কৃষকলীগ সাধারণ সম্পাদক নবাব আলী, চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা যুবলীগ সহ-সভাপতি তৌহিদুল ইসলাম, বিমান শ্রমিক লীগ নেতা এফএম দিদারুল ইসলাম, উপজেলা যুবলীগ সদস্য লোকমান হাকিম, দোহাজারী পৌরসভা যুবলীগ আহবায়ক মনসুর আলী ফয়সাল, হাশিমপুর ইউনিয়ন যুবলীগ আহবায়ক সাইফুল ইসলাম প্রমূখ।

সেতুটির উদ্ভোধনকালে নজরুল ইসলাম চৌধুরী এমপি বলেন, “পাহাড় বেষ্টিত গহিন অরণ্যে এই সেতুটি নির্মাণের ফলে পাহাড়ি জনপদ ধোপাছড়ির সাথে সড়ক পথে দোহাজারী পৌরসভার যোগাযোগ আরো সহজ হবে। পাহাড়ি জনপদের সাথে সমতলের সম্মিলনে ব্যাপক উপকৃত হবে সাধারণ মানুষ।

এছাড়া রাঙ্গুনিয়া উপজেলার পদুয়া ইউনিয়নসহ দুই উপজেলার অন্তত ২০ কিলোমিটার পাহাড়ি জনপদের যোগাযোগের ক্ষেত্রে নতুন চমক সৃষ্টি করেছে এই সেতু। এই এলাকার পাহাড়ি নৃগোষ্ঠীসহ অন্তত ২০ থেকে ২৫ হাজার মানুষের জীবন-জীবিকাসহ এলাকার ছেলেমেয়েদের লেখাপড়ার আমূল পরিবর্তনের জন্য নিঃসন্দেহে সহায়ক ভূমিকা পালন করবে এই সেতু।”

স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর চন্দনাইশের প্রকৌশলী মুহাম্মদ জুনাইদ আবছার চৌধুরী জানান, স্থানীয় সরকার প্রকৌশল অধিদফতর চন্দনাইশের অধীনে চার কোটি ১২ লাখ ৪ হাজার ৮৭৬ টাকা ব্যয়ে নির্মিত সেতুটির দৈর্ঘ্য ৮১ মিটার, প্রশস্ত ৭.৩ মিটার। দুইটি এবার্টমেন্ট ও দুইটি পিলারের উপরে তিন স্প্যানবিশিষ্ট সেতুর কাজ শুরু হয় ২০১৭ সালের ১২ ডিসেম্বর। আর শেষ হয় চলতি বছর ২৮ মার্চ। দুর্গম পাহাড়ি এলাকায় সেতুটি নির্মাণ হওয়ার পর যান ও জনচলাচলের জন্য উম্মুক্ত হওয়ায় ধোপাছড়ি ইউনিয়ন ও দোহাজারী পৌরসভার বাসিন্দাদের মধ্যে বইছে খুশির জোয়ার।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর