আজ ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কালারমারছড়ার ৯নং ওয়ার্ডের সম্প্রীতির বন্ধনভোজ


নিজস্ব প্রতিবেদক

মহেশখালীর কালারমারছড়া ইউনিয়নের আঁধারঘোনা, মিজ্জিরপাড়া, ছড়ারলামা, পানেরছড়া, গোদারপাড়া ও ডেইল্যাঘোনা ( আংশিক ) নিয়ে কালারমারছড়ার দ্বিতীয় বৃহত্ততম ৯নং ওয়ার্ড গঠিত। এই ওয়ার্ডের তিন-শতাধাধিক ব্যক্তির সমন্বয়ে গত ১১ নভেম্বর, শুক্রবার “সম্প্রীতির বন্ধন, ৯ নং ওয়ার্ড, কালারমারছড়া” নামে মিলনমেলা ও ভোজনের আয়োজন করা হয়। এলাকার কয়েকজনের প্রচেষ্টায় এই আয়োজন হয়েছে মর্মে জানা যায়। প্রত্যেকের ৩০০ টাকা হারে চাঁদা ও ক্ষেত্রবিশেষ আরও বেশি পরিমাণ চাঁদার সমন্বয়ে বিশাল এ মিলনমেলা ও ভোজনে AMD লগো সম্বলিত No Generation Gap শিরোনামে প্রত্যেককে একটি করে গেঞ্জি প্রদান করা হয়। শুক্রবার জুমার নামাজ শেষে শাহ মজিদিয়া বালিকা দাখিল মাদরাসার মাঠে দুপুরের খাবারের আয়োজন শেষে আলোচনাসভা অনুষ্ঠিত হয়। এতে এলাকার ( ৯ নং ওয়ার্ড ) কৃষক, শ্রমিক, ছাত্র, শিক্ষক, ব্যবসায়ী ও বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ সম্প্রীতির বন্ধনে অংশগ্রহণ করেন।

সম্প্রীতির বন্ধনের সংক্ষিপ্ত আলোচনায় আয়োজনের সমন্বয়ক শামসুল আলম শাহী বলেন, বৃহত্তর ৯নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন শ্রেণিপেশার মানুষ, গরিব-ধনী, ও অন্যান্যের মধ্যে দূরত্ব কমানো, বন্ধন ও সম্প্রীতি বাড়ানোর লক্ষ্যে আমরা এই উদ্যোগ গ্রহণ করেছি। এতে কারও ব্যক্তিস্বার্থ নেই, সম্প্রীতির বন্ধনই একমাত্র উদ্দেশ্য। ফাহিম রায়হানের সঞ্চালনায় সমন্বয়ক শামসুল আলম শাহীর সভাপতিত্বে আলোচনায় আরও অংশ নেন আবুল খায়ের লেদু, মাস্টার কবির আহমদ, রমজান আলী, প্রধান শিক্ষক আমিনুল এহসান মানিক, পুলিশ অফিসার মোহাম্মদ সোলাইমান, সাংবাদিক মোয়াজ্জেম হোসেন শাকিল, শামসুল আলম, মেম্বার আবু আহমেদ (প্যানেল চেয়ারম্যান ) , আওলাদ হোসেন সাগর (ভার্চ্যুয়াল), আরিফুর রহমান, মুহাম্মদ রুহুল আমিন, নুরুল মোস্তফা জুয়েল, ওয়াহেদ রাসেল, মাঈনুল ইসলাম, আতিকুর রহমান, আনসারুল করিম, অহিদুল ইসলাম, সৈকত নূর পুষ্প, নাছিম উদ্দীন, মেহেদী হাসান প্রমুখ।


আলোচনায় বক্তারা বলেন, এলাকার সবার সাথে সম্প্রীতি বাড়াতে এ ধরনের আয়োজন ফলপ্রসূ হবে। তাছাড়া শিক্ষা ও সংস্কৃতির প্রতি মনোযোগ বাড়াতে হবে। সারাদেশে এটি ক্রাইমজোন হিসেবে খ্যাত বিধায় সন্ত্রাস, চাঁদাবাজি ও জোরদখল এড়িয়ে যাওয়ার চেষ্টার পাশাপাশি খুনখারাবির ক্ষেত্রে নিরপরাধ কেউ যাতে মামলার আসামি না হয় সেদিকে বিশেষ দৃষ্টি দিতে হবে। আলোচনা শেষে কুপনড্রর মাধ্যমে বিজয়ীদের পুরস্কার প্রদান করেন ৯নং ওয়ার্ডের বিশিষ্ট জনেরা।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর