আজ ৭ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ২০শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দোহাজারী পৌরসভায় টিসিবির পণ্য বিক্রিঃ খুশি সাধারণ মানুষ


মোঃ কামরুল ইসলাম মোস্তফা, চন্দনাইশঃ

চন্দনাইশ উপজেলার দোহাজারী পৌরসভায় ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে নিন্ম আয়ের পরিবারগুলোর মাঝে ভর্তুকি মূল্যে টিসিবির তেল, ডাল ও চিনি বিক্রি চলছে।

জানা গেছে, করোনাকালীন সময় থেকে দোহাজারী পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডের ৪ হাজার ৭শ ৫৪টি পরিবারের মাঝে এসব পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে। চন্দনাইশ উপজেলার দুইটি পৌরসভা ও আটটি ইউনিয়নে তিনজন ডিলারের মাধ্যমে সর্বমোট ১৫ হাজার ৭শ ৯৫টি পরিবারকে প্রতিমাসে একবার এসব পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে।

নিম্ন আয়ের ফ্যামিলি কার্ডধারী একজন ভোক্তা প্রতিমাসে সর্বোচ্চ দুই লিটার সয়াবিন তেল, দুই কেজি মসুর ডাল, এক কেজি চিনি কিনতে পারছেন। প্রতি লিটার সয়াবিন তেল ১১০ টাকা, প্রতি কেজি চিনি ৫৫ টাকা, এক কেজি মসুর ডাল ৬৫ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। বাজার মূল্যের চেয়ে কম দামে এসব নিত্য পণ্য কিনতে পেরে খুশি নিম্ন-মধ্যবিত্ত ও হতদরিদ্র মানুষ। তারা এজন্য প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। পাশাপাশি এ ধরনের উদ্যোগ চালু রাখা গেলে তারা আরো উপকৃত হবেন বলে জানান।

দোহাজারী পৌরসভার বিভিন্ন ওয়ার্ডে পণ্য বিক্রি কার্যক্রমের আওতায় সাঙ্গু নদীর দক্ষিণ পাড়ে নতুন চাগাচর এলাকায় মঙ্গলবার (৬ ডিসেম্বর) সকাল থেকে বিকাল পর্যন্ত সুশৃঙ্খলভাবে টিসিবির পণ্য বিক্রি করা হয়েছে। সকালে সেখানে আকস্মিক পরিদর্শন করেন দোহাজারী পৌরসভার প্রশাসক ও চন্দনাইশ উপজেলা নির্বাহী অফিসার নাছরীন আক্তার।

বিক্রি কার্যক্রমে সন্তোষ প্রকাশ করে তিনি বলেন, “দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণে সরকারী পদক্ষেপগুলোর মধ্যে অন্যতম হলো ভর্তুকি মূল্যে টিসিবি কর্তৃক পণ্য বিক্রি। সরকারী সংস্থা ট্রেডিং কর্পোরেশন অব বাংলাদেশ (টিসিবি) কর্তৃক ভর্তুকি মূল্যের পণ্য বিক্রির কার্যক্রমে বিশৃঙ্খলা এড়াতে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে নির্দিষ্ট স্থানে পণ্য বিক্রি করা হচ্ছে।

দরিদ্র পরিবারগুলোকে কম দামে পণ্য দিতে পরিবার পরিচিতি কার্ড চালু করেছে সরকার। বিতরণের আগের দিন সংশ্লিষ্ট ফ্যামিলি কার্ড হোল্ডারদের পণ্য বিক্রয়ের স্থান ও সময় জানিয়ে দেয়া হয়েছে। তিনি জানান, চন্দনাইশ উপজেলার ২টি পৌরসভা ও ৮টি ইউনিয়নের ১৫ হাজার ৭শ ৯৫ টি পরিবারকে ফ্যামিলি কার্ডের মাধ্যমে পণ্য দেয়া হচ্ছে।

এতে একজনেরটা আরেকজনের কাছে চলে যাওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। ফলে প্রকৃত কার্ডধারীরাই পণ্য পাচ্ছেন। আগে তালিকা না থাকায় একই ব্যক্তি একাধিকবার পণ্য পেতেন এতে অনেক পরিবার বঞ্চিত হতেন। তাই অপেক্ষাকৃত স্বল্প আয়ের মানুষ বা উপকারভোগীদের অনুকূলে পরিবার পরিচিতি কার্ড প্রদান করা হয়েছে। স্বল্পদামে টিসিবির পণ্য পেয়ে নিন্ম আয়ের পরিবারে হাসি ফুটেছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর