আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সাবান-ডিটার

সাবান-ডিটারজেন্টের দাম বেড়েছে


দেশের বাজারে নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যের সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বাড়ছে সাবান, ডিটারজেন্ট ও প্রসাধনপণ্যের দাম। খুচরা ব্যবসায়ীরা বলছেন, গত দুই মাসে দৈনন্দিন ব্যবহারের প্রসাধনপণ্যের দাম বেড়ে প্রায় দ্বিগুণ হয়েছে। এসব পণ্যের দাম আরও বাড়তে পারে বলেও আভাস দেন তারা।

ব্যবসায়ীদের সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, একবারে না বেড়ে কয়েক দফায় বেড়েছে প্রসাধনপণ্যের দাম। বাজারে পণ্য কিনতে এসে ক্রেতাদের অনেকেই বাড়তি খরচ সামাল দিতে না পেরে প্রসাধনপণ্য কিনছেন না। দাম জেনে চলে যান।

গতকাল বুধবার সরেজমিনে বাজার ঘুরে দেখা যায় সাবান, ডিটারজেন্ট, টুথপেস্টসহ সব ধরনের প্রসাধনপণ্যের দাম ১০-৩০ টাকা পর্যন্ত বেড়েছে। ১৫ দিন আগে ৬৫ টাকায় বিক্রি হওয়া ১২৫ গ্রামের গায়ে মাখার ডেটল সাবান বিক্রি হচ্ছে ৮০ টাকায়। ১০০ গ্রামের লাক্স সাবান নতুন দামে বিক্রি হচ্ছে ৬৫ টাকা, তিন মাস আগে ২১ টাকায় বিক্রি হওয়া ১০০ গ্রামের কেয়া সাবান বিক্রি হচ্ছে ৪৫ টাকায়, আধা কেজির কেয়া ডিটারজেন্ট পাউডারের প্যাকেট বিক্রি হচ্ছে ১৫৫ টাকায়, ২০ টাকা বেড়ে ১ কেজি হুইল পাউডারের প্যাকেট বিক্রি হচ্ছে ১৫০ টাকায়, ১৪০ টাকার রিন পাউডার বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকায়, ৫০০ গ্রামের লিকুইড ভিম বিক্রি হচ্ছে ১২০ টাকায়, বল সাবানের দাম ৪ টাকা বেড়ে বিক্রি হচ্ছে ২২ টাকা করে। মোহাম্মদপুরের প্রসাধনপণ্য বিক্রেতা নূরুল্লাহ দেশ রূপান্তরকে বলেন, বাজারে থাকা হ্যান্ডওয়াশ, ঘর মোছা ও বাথরুম পরিষ্কার করার বিভিন্ন পণ্য, টিস্যু এক কথায় প্রায় সব পণ্যের দামই বাড়তি। দুইমাস আগে যে সাবান ৩৫ টাকা ছিল সেটা এখন ৫৫ টাকা, যেটা ৫৫ টাকা ছিল সেটা এখন ৭৫ টাকা।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক বসুন্ধরা সিটি কমপ্লেক্সের এক প্রসাধনপণ্যের দোকান মালিক দেশ রূপান্তরকে বলেন, ‘অসৎ ব্যবসায়ীদের কারণেই বাজার অস্থির হয়ে উঠেছে। উচ্চ দামে বিক্রি হওয়া প্রসাধনপণ্যের দাম দফায় দফায় কোম্পানিগুলো বাড়িয়েছে। এসব পণ্যের দাম বাড়ানোর কোনো যৌক্তিকতা নেই।’

কারওয়ান বাজারের কেয়া কসমেটিকসের ডিলার নাসির উদ্দীন দেশ রূপান্তরকে বলেন, দাম বাড়ার পেছনের কারণ মূলত কাঁচামালের দাম ও আমদানি খরচ বৃদ্ধি এবং  বৈশ্বিক মূল্যস্ফীতি। তিনি আরও বলেন, রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে গত ৬ মাসের মধ্যে সব ধরনের প্রসাধনপণ্যের দাম দ্বিগুণ হয়েছে।

সম্প্রতি সবচেয়ে বেশি বেড়েছে টুথপেস্টের দাম। কোম্পানি ভেদে সর্বোচ্চ ৩০ টাকা বেড়ে ২০০ গ্রামের টিউব বিক্রি হচ্ছে ১৬০ টাকা। যা গত মাসেও ১৩০ টাকায় বিক্রি হয়েছে।

ধানমন্ডি ৩২ নম্বরে কথা হয় আজমল নামের এক ক্রেতার সঙ্গে। তিনি দেশ রূপান্তরকে বলেন, বাজারে সবধরনের খাদ্যপণ্যের দাম বেশি। তার ওপরে নতুন করে ব্যবহার করার সাবান, টুথপেস্ট, ডিটারজেন্ট পাউডার ও হারপিকের দাম বাড়ায় খরচ  বেড়েছে। আর এসব পণ্যের দাম বাড়ার ফলে প্রতি মাসে অন্তত এক থেকে দেড় হাজার টাকা বাড়তি গুনতে হয়।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর