আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ভ্যাকসিন

দেশে করোনা টিকার ১ম ডোজ বন্ধ হবে ৩ অক্টোবর


করোনা টিকার ১ম ডোজ আগামী ৩ অক্টোবর থেকে বন্ধ করা হচ্ছে। একই সঙ্গে দ্বিতীয় ডোজ দেয়াও বন্ধ করার সম্ভাবনা রয়েছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক। সাংবাদিকদের সাথে আলাপকালে তিনি এ কথা জানান।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, যারা এখনো প্রথম ডোজ ও দ্বিতীয় ডোজের টিকা নেননি তারা আগামী ৩ অক্টোবরের পর আর টিকা পাবেন না। অনেক টিকা শেষ হয়ে গিয়েছে, আবার অনেক টিকার মেয়াদ শেষ হয়েছে। প্রথম ও দ্বিতীয় ডোজ বন্ধ করার আগে ২৮ সেপ্টেম্বর থেকে ৩ অক্টোবর পর্যন্ত একটি ক্যাম্পেইন করা হবে। এর মাধ্যমে প্রথম, দ্বিতীয় ডোজ ও বুস্টার ডোজ গণহারে সবাইকে দেয়া হবে। এরপর প্রথম ডোজ টিকা আর পাওয়াই যাবে না। আর দ্বিতীয় ডোজ টিকা দেয়াও সম্ভব হবে না।

জাহিদ মালেক বলেন, এখনো ৩৩ লাখ মানুষ প্রথম ডোজ নেয়নি। ৯৪ লাখ দ্বিতীয় ডোজ নেয়নি। আমরা এখন পর্যন্ত ৩০ কোটি ডোজ টিকা দিয়েছি। এছাড়া ১০ লাখ শিশুকে টিকাদান হয়ে গিয়েছে। তবে এখনো সোয়া দুই কোটি শিশুকে টিকা দিতে হবে। তার মানে চার কোটির বেশি টিকা দেয়া এখনো প্রয়োজন। আমরা মাত্র শুরু করেছি। শিশুদের টিকা কার্যক্রম আরো অনেক বাকি আছে।

আগামী ১১ অক্টোবর থেকে জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে ৫ থেকে ১১ বছর বয়সী শিশুদের টিকাদান কর্মসূচি চলবে বলে জানিয়েছে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। মন্ত্রী বলেন, করোনা নিয়ন্ত্রণ করতে না পারলে পৃথিবীর কী অবস্থা হয়, তা আপনারা দেখেছেন। করোনা নিয়ন্ত্রণে না থাকলে শিক্ষা কার্যক্রম ব্যাহত হয়। এখন টিকা দেয়া হচ্ছে, ছেলে-মেয়েরা স্কুলে যাচ্ছে। করোনা বেড়ে গেলে অর্থনীতিতে প্রভাব পড়বে। আমাদের শিল্প-কারখানায়, চলাচলে প্রভাব পড়বে। করোনার সংক্রমণ বেড়েছে উল্লেখ করে মন্ত্রী বলেন, আমাদের সচেতন থাকতে হবে। মাস্ক পরা আমরা ভুলে গিয়েছি, মাস্ক পরতে হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর