আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

সংগৃহীত ছবি

মিয়ানমারে সু চি ও অধ্যাপক শেনের ৩ বছরের কারাদণ্ড


গৃহবন্দী থাকা মিয়ানমারের গণতন্ত্রপন্থী নেত্রী অং সান সু চি ও তার সাবেক অর্থনৈতিক উপদেষ্টা অস্ট্রেলিয়ান অধ্যাপক শেন টার্নেলকে তিন বছরের কারাদণ্ড দিয়েছে দেশটির সামরিক আদালত।

আজ বৃহস্পতিবার (২৯ সেপ্টেম্বর) নেপিদোর একটি বদ্ধ সামরিক আদালতে তাদের বিচার পরিচালিত হয়। সু চি ও তার উপদেষ্টার বিরুদ্ধে সরকারি গোপনীয়তা আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয়েছে। খবর বিবিসি ও আলজাজিরার।

গত আগস্টে সাক্ষ্য দেওয়ার সময় তারা দুজনেই মামলার অভিযোগ অস্বীকার করেন। ২০২১ সালের ফেব্রুয়ারি সামরিক অভ্যুত্থানের পাঁচ দিন পরে সিডনির ম্যাককুয়ারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষাবিদ টার্নেলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছিল। বৃহস্পতিবার অস্ট্রেলিয়ান দূতাবাসকে তার বিচারে অংশ নেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি। বিচারের সময় তাকে অনুবাদকও দেওয়া হয়নি।

বিভিন্ন মানবাধিকার সংস্থা এই রায়ের সমালোচনা করেছে। অস্ট্রেলিয়ার মানবাধিকার প্রতিষ্ঠান এই রায়ের নিন্দা জানিয়েছে এবং তার্নেলকে সাহায্যে অস্ট্রেলিয়াকে কিছু করার আহ্বান জানিয়েছে।

শান্তিতে নোবেলজয়ী ৭৬ বছর বয়সী অং সান সু চির বিরুদ্ধে বিভিন্ন অভিযোগে প্রায় এক ডজনের বেশি মামলা দায়ের করেছে সামরিক অভ্যুত্থানের মাধ্যমে ক্ষমতা দখলকারী দেশটির জান্তা সরকার।

গত বছর অভ্যুত্থানের মাধ্যমে মিয়ানমারের ক্ষমতাসীন গণতান্ত্রিক সরকারকে হটিয়ে ক্ষমতা দখল করে নেয় সামরিক বাহিনী। বন্দি করা হয় গণতন্ত্রপন্থি নেত্রী অং সান সু চি ও তার দল ন্যাশনাল লীগ ফর ডেমোক্র্যাসির (এনএলডি) বিভিন্ন স্তরের কয়েক হাজার নেতাকর্মীকে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর