আজ ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

‘বাংলার মানুষের কাছে রবীন্দ্রনাথ,নজরুল ও সুকান্ত চির জাগরুক থাকবে’


বাংলার মানুষের কাছে রবীন্দ্রনাথ, নজরুল এবং সুকান্ত চির জাগরুক থাকবে, এ তিন কবি বাংলা সাহিত্যে কেবল ঐতিহ্য হিসেবে নয়, ভবিষ্যতের পথ প্রদর্শক হিসেবেও বরণীয়। এদের একজন উদার মানবিকতাবাদের কবি, আরেকজন মেহনতী মানুষের মুক্তিতে বিশ্বাসী স্বাধীনতা ও জাতীয় গণতান্ত্রিক সংগ্রামের কবি। অন্যজন সমাজতান্ত্রিক বাস্তবতার আদর্শে সর্বহারা শ্রেণীর বিপ্লবে বিশ্বাসী কবি। বলা চলে একই উজানে চলা নৌকার হাল ধরে থাকা তিন কান্ডরী। বোয়ালখালীতে গান কবিতা কথামালায় বাংলাসাহিত্যের তিন মহীরুহ রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর, কাজী নজরুল ইসলাম ও সুকান্ত ভট্টাচার্যের জন্মজয়ন্তী অনুষ্ঠানে বক্তারা এসব কথা বলেন।

শুক্রবার(১৪জুন) বিকালে উপজেলা সদরের অস্থায়ী কার্যালয়ে দিশারী খেলাঘর আসরের আয়োজনে অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন আসরের সভাপতি জামাল আবদুল নাসের।

আসরের সহ সাদারণ সম্পাদক নাজমা আকতার ও সাহিত্য সম্পাদক রিয়া মল্লিকের সঞ্চালনায় অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন খেলাঘর কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য শিশু সংগঠক, সাংবাদিক আবুল ফজল বাবুল, সংষ্কৃতি সংগঠক মোহাম্মদ আলী,শহিদ মুক্তিযোদ্ধা এখলাছের ভাগ্নে মোজাম্মেল হক এরশাদ, ক্ষেতমজুর সংগঠক শ্যামল বিশ্বাস, অবসরপ্রাপ্ত শিক্ষক দিপুল নাহা,সুবাসী রানী চৌধুরী, কাজল শীল প্রমুখ।

অনুষ্ঠানে বিশ্বকবি রবিন্দ্রনাথ ঠাকুরের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন আসরের সাহিত্য সম্পাদক রিয়া মল্লিক,বিদ্রোহী কবি কাজী নজরুল ইসলামের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক রাজিয়া সুলতানা, বিপ্লবী কবি সুকান্ত ভট্টাচার্য্যের সংক্ষিপ্ত জীবনী পাঠ করেন আসরের সদস্য ঐশী বনিক,আবৃত্তি পরিবেশন করেন নাজমা আকতার,জান্নাতুল ফেরদৌস রাজিয়া সুলতানা,তত্ব বনিক, সৌরভ শীল,একক সংগীত পরিবেশন করেন চন্দ্রিকা বল, পুষ্পিতা তালুকদার,পুজা শীল, নিলাদ্রী চৌধুরী,সৃষ্টি শীল,নির্বান চৌধুরী, ঐশী রায়, মনিষা চৌধুরী,নিতিশা চৌধুরী ।

অনুষ্ঠানে বক্তারা বলেন ,বাঙালির মানস গঠনে অপরিহার্য ভূমিকা রেখেছেন এই তিন মহান সাহিত্যিক।“তাঁদের রচনা সাম্প্রদায়িকতা, মৌলবাদ, সাম্রাজ্যবাদসহ সকল অপশক্তির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এবং সাম্যবাদী সমাজ গঠনের সংগ্রামে আলোকবর্তিকা হিসেবে আমাদের পথনির্দেশ করে চলেছে।”এই তিন কবিকে ‘অসাম্প্রদায়িক ও সাম্যবাদী চেতনার আঁধার। তাঁদের রচনা থেকে অনুপ্রেরণা নিয়েই বাঙালির ভবিষ্যত লড়াই সংগ্রামে জয়ী হওয়ার ব্রত নিতে হবে।”

পরে মনোজ্ঞ সাংষ্কৃতিক অনুষ্ঠান পরিবেশন করে দিশারী খেলাঘরের শিল্পীবৃন্দ ।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর