আজ ১৯শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৪ঠা ডিসেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন

খাবারের মোড়কে ভুল তথ্য, ৩৪ শতাংশে হৃদরোগের ঝুঁকি


ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশন অব বাংলাদেশ পরিচালিত ‘অ্যাসেসমেন্ট অব সল্ট কন্টেন্ট অ্যান্ড লেবেল কমপ্লায়েন্স অব কমনলি কনজিউমড প্রসেসড প্যাকেজড ফুডস অব বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক গবেষণায় উঠে এসেছে প্যাকেটজাত খাবার খাওয়ার ফলে দেশে হৃদরোগের প্রকোপ বাড়ছে। প্যাকেটজাত খাবারের ৩৪ শতাংশ খাবারে নিরাপদ মাত্রার দ্বিগুণ অর্থাৎ ১ দশমিক ৫ গ্রামের বেশি লবণ পাওয়া গেছে।

সম্প্রতি একটি সেমিনারে যুক্তরাষ্ট্রের রিজলভ টু সেইভ লাইভস সহায়তায় সম্পাদিত এই গবেষণার ফল প্রকাশ করা হয়। মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন হার্ট ফাউন্ডেশনের উচ্চ রক্তচাপ নিয়ন্ত্রণ গবেষণা সমন্বয়ক ডা. আহমেদ খাইরুল আবরার।

বাংলাদেশ ন্যাশনাল হার্ট ফাউন্ডেশনের গবেষণা সমন্বয়কারী ডা. শেখ মো. মাহবুবুস সোবহান বলেন, লবণ বেশি খেলে উচ্চ রক্তচাপ হয়। উচ্চ রক্তচাপ হার্টের ক্ষতি করে, স্ট্রোক হয় ও কিডনি নষ্ট করে। গ্রহণযোগ্য মাত্রার চেয়ে বেশি লবণ খেলে মূলত এই তিন রোগে আক্রান্ত হওয়ার ঝুঁকি সবচেয়ে বেশি। এ ছাড়া দেশে নারীদের বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে যে হাড় ক্ষয় দেখা দেয়, সেটার জন্য বেশি লবণ খাওয়ায় দায়ী।

এই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও গবেষক বলেন, ‘আমাদের দেশে এই প্রক্রিয়াজাত প্যাকেট খাবারের প্রবণতা দিন দিন বাড়ছে। তাই লবণের ব্যাপারে সবাইকে সতর্ক হতে হবে।’

এই গবেষক জানান, হার্টের জন্য ঝুঁকিপূর্ণ যেসব কারণ, সেগুলো নিয়ে আমরা গবেষণা করি। গত বছরের জুলাই থেকে এ বছরের জুলাই পর্যন্ত পুরো এক বছর এই গবেষণা করেছি। গবেষণাটিতে বাজারে বহুল প্রচলিত ১০৫টি ব্র্যান্ডের চানাচুর, নুডলস, ইনস্ট্যান্ট স্যুপ, ঝালমুড়ি, লজেন্স, আচার-চাটনি, চিপস, ডালবুট, সস্, বিস্কুট, পাউরুটি, কেক, কোমল পানীয় ও ফ্রুট ড্রিঙ্কসের নমুনা পরীক্ষা করে এই ফল পাওয়া গেছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর