আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ইভিএমে জালিয়াতির অভিযোগে নির্বাচন কমিশনারের বিরুদ্ধে যুবলীগ নেতার মামলা


মোঃ শোয়াইব, হাটহাজারী:

চট্টগ্রামে ইলেকট্রনিক্স ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ভোট কারচুপির অভিযোগ এনে মামলা করেছে নাসির উদ্দিন নামের এক যুবলীগ নেতা ।তিনি হাটহাজারী উপজেলা যুবলীগের সদস্য। নবম দাপের ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ফরহাদাবাদ ইউনিয়নের আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী প্রার্থী ছিলেন তিনি। বুধবার চট্টগ্রাম প্রথম সিনিয়র সহকারী জজ ইসরাত জাহান নাসরিনের আদালতে এ মামলা করেন। মামলার প্রধান নির্বাচন কমিশনার কাজী হাবিবুল আউয়াল স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের সচিব মোঃ মেজবাহ উদ্দিন চৌধুরী নির্বাচন কমিশনার সচিব হুমায়ুন কবির খোন্দকার। আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা হাসানুজ্জামান চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসন মোঃ মমিনুর রহমান জেষ্ঠ নির্বাচন কর্মকর্তা মোঃ আতাউর রহমান,ফরহাদাবাদ ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান শওকত আলম শওকতসহ ২৩ কে বিবাদী করা হয়েছে।

বিষয়টি নিশ্চিত করে বাদীর আইনজীবী হাসান আলী চৌধুরী বলেন নবম দাপে অনুষ্ঠিত ইউপি নির্বাচনে নৌকা প্রার্থীর চেয়ে বেশি ভোট পাওয়া সত্ত্বেও নির্বাচন কর্মকর্তার অন্যায় আবদার না রাখায় ইভিএম এর মাধ্যমে ভুল ফলাফল প্রদর্শন করে বাদিকে পরাজিত ঘোষণা করেছে। বাদি পুনঃনির্বাচন ও ভোট পুনঃনিরীক্ষণের আবেদন করলেও তা গ্রাহ্য না করে ৮ জুলাই নৌকার প্রার্থীকে বিজয়ী করে গেজেট প্রকাশ করে। অভিযোগ করেও কোন প্রতিকার না পেয়ে বিবাদীদের বিরুদ্ধে এ মামলা করেছেন তিনি। আদালত মামলাটি গ্রহণ করেছে তবে সন্ধ্যা পর্যন্ত কোন আদেশ দেননি।

প্রসঙ্গত গত ১৫ জুন নবম দাপে চট্টগ্রামের ৬টি উপজেলার ১৮ টি ইউনিয়নে ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হয়। এর মধ্যে ৯টি ইউনিয়নের নৌকা প্রার্থী,৪ ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের বিদ্রোহী প্রার্থী এবং ৫ ইউনিয়নে স্বতন্ত্র ও বিএনপি জামাত সমর্থিত প্রার্থীরা বিজয় হন। এর মধ্যে ফরহাদাবাদ ইউনিয়নে ৬হাজার ১শত ৯৮ ভোট পেয়ে নৌকা প্রতীক নিয়ে চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন শওকতুল আলম শওকত বিদ্রোহী প্রার্থী নাসির উদ্দিন পান ৫ হাজার ৬৬৯ ভোট।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর