আজ ৪ঠা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ, ১৯শে জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

আলোর পথের যাত্রী দের র‍্যাব-৭ এর পক্ষ থেকে ঈদুল আযহার উপহার সামগ্রী বিতরণ


|| কাইছার হামিদ, নিজস্ব প্রতিবেদক ||

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর নিকট গত ২০১৮ এবং ২০২০ সালে আত্মসমর্পণ করা ৭৭ জন আলোর পথের অভিযাত্রীদের মাঝে মহাপরিচালক, র‌্যাব ফোর্সেস এর পক্ষ থেকে ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম কর্তৃক পবিত্র ঈদ-উল-আযহা ২০২৪ উপলক্ষে উপহার সামগ্রী বিতরণ এবং তাদের বর্তমান জীবনধারার উপর বিশেষ মতবিনিময় সভা।

র‌্যাব প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সমাজের বিভিন্ন অপরাধ এর উৎস উদ্ঘাটন, অপরাধীদের গ্রেফতার সহ আইন শৃঙ্খলা পরিস্থিতির সার্বিক উন্নয়নে নিরলসভাবে কাজ করে চলেছে। র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম অস্ত্রধারী সস্ত্রাসী, ডাকাত, ধর্ষক, দুর্ধর্ষ চাঁদাবাজ, সন্ত্রাসী, খুনি, ছিনতাইকারী, অপহরণকারী ও প্রতারকদের গ্রেফতার এবং বিপুল পরিমাণ অবৈধ অস্ত্র, গোলাবারুদ ও মাদক উদ্ধারের ক্ষেত্রে জিরো টলারেন্স নীতি অবলম্বন করায় সাধারণ জনগণের মনে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে সক্ষম হয়েছে।

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম এর বিশেষ অভিযান পরিচালনা এবং অব্যাহত কঠোর পর্যবেক্ষণের মাধ্যমে গত ২০১৮ সালে ৪৩ জন জলদস্যুকে আত্মসমর্পণ করাতে সক্ষম হয় এবং তাদের আত্মসমর্পণ পরবর্তী সময়ে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম কর্তৃক বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন সহযোগিতা লাভের ফলে তারা পুনরায় স্বাভাবিক জীবনযাপন শুরু করে। আত্মসমর্পণ করা জলদস্যুদের সমাজে স্বস্তির সাথে স্বাভাবিক জীবনযাপন ও র‌্যাব সহ সকল আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী কর্তৃক সহযোগিতার মনোভাব প্রাপ্তির কথা প্রচার করে গত ২০২০ সালে র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম আরও ৩৪ জন জলদস্যুকে আত্মসমর্পণ করাতে সক্ষম হয়।

র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম উল্লেখিত জলদস্যুদের আত্মসমর্পণের পর থেকে সামাজিক ও ধর্মীয় অনুষ্ঠান সহ বিভিন্ন সময়ে তাদেরকে ঈদ সামগ্রী উপহার এবং প্রণোদনা প্রদান করে থাকে। এরই ধারাবাহিকতায় অদ্য ১২ জুন ২০২৪ খ্রি., রোজ বুধবার ১২৩০ ঘটিকায় মহাপরিচালক, র‌্যাব ফোর্সেস এর পক্ষ থেকে মহেশখালী, কুতুবদিয়া, বাঁশখালী এবং পেকুয়া উপকূলীয় অঞ্চলের আত্মসমর্পণ করা আলোর পথের অভিযাত্রীদের মাঝে র‌্যাব-৭, পতেঙ্গা, চট্টগ্রামের সার্বিক ব্যবস্থাপনায় উপজেলা পরিষদ মিলনায়তন হল, বাঁশখালী চট্টগ্রামে পবিত্র ঈদ-উল-আযহা-২০২৪ উপলক্ষে ঈদ শুভেচ্ছা ও উপহার সামগ্রী বিতরণ এবং তাদের বর্তমান জীবনধারার উপর বিশেষ মতবিনিময় সভার আয়োজন করা হয়।

এসময় মেজর মোঃ সানরিয়া চৌধুরী ভারপ্রাপ্ত অধিনায়ক, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম, সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার মোঃ শরীফ- উল- আলম, মিডিয়া অফিসার, র‌্যাব-৭, চট্টগ্রাম, এবং ইন্সপেক্টর(তদন্ত), বাঁশখালী থানা সহ স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গ এবং প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়ার সম্মানিত সাংবাদিকবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

উল্লেখ্য যে, আত্মসমর্পণ করা জলদস্যুরা র‌্যাবের এরূপ কল্যাণমূলক কর্মকান্ডে সন্তুষ্টি প্রকাশ করে এবং র‍্যাবের তরফ থেকে অপকর্ম থেকে ফিরে এসে সুন্দর ও স্বাভাবিক জীবনযাপনের অনুপ্রেরণা যোগানোর কথা প্রকাশ করে।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর