আজ ২৪শে মাঘ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ৭ই ফেব্রুয়ারি, ২০২৩ খ্রিস্টাব্দ

বাংলা ভাষা প্রচলনে আইন প্রয়োগের দাবি চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ও নতুন প্রজন্মের


যারা বাংলা ভাষা প্রচলন আইন ২০০৪ অমান্য করছে তাদের বিরুদ্ধে আইন প্রয়োগের দাবি জানিয়েছে চট্টগ্রামের মুক্তিযোদ্ধা ও নতুন প্রজন্ম সমন্বয়ে একটি সামাজিক সংগঠন। আজ সোমবার (৯ জানুয়ারি) চকবাজারে ‘বাংলা প্রচলন উদ্যোগ’ এর নামফলকসহ রাষ্ট্রের সর্বস্থরে বাংলা ভাষার ব্যবহারের দাবিতে দুটো পথসভা অনুষ্টিত হয়। শেখ গোলাম মোহাম্মদ রাজুর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে মুক্তিযুদ্ধকালীন চট্টগ্রাম শহরের অন্যতম কমান্ডার বীর মুক্তিযোদ্ধা ডা. মাহফুজুর রহমান বলেন, ‘বঙ্গবন্ধু আজীবন বাংলা ভাষাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য লড়েছেন। স্বাধীনতার পর সংবিধানে তিনি বাংলাকে রাষ্ট্র ভাষা বলে ঘোষণা করেছেন। তারই ধারাবাহিকতায় ১৯৮৭ সালে বাংলা ভাষা প্রচলন আইন হয়েছে। আইনের প্রয়োগ না হওয়ায় ২০০৪ সালে বাংলা ভাষা প্রচলনের জন্য উচ্চ আদালত রায় দিয়েছেন। বিশেষ করে সকল নাম ফলক, মিডিয়ার সকল বিজ্ঞাপনে বাংলা ভাষার ব্যবহার বাধ্যতামুলক করতে নির্দেশ দিয়েছেন।’

বক্তারা জানান, বাংলা প্রচলন উদ্যোগ আইন ও আদালতের নির্দেশের কপি সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসনে জমা দিয়েছে। সিটি কর্পোরেশন ও জেলা প্রশাসনে বিভিন্ন সময়ে ধর্না দেয়া হয়েছে। তারা দুই একদিন অভিযান চালিয়ে তা স্থগিত করে দিয়েছেন। এরপর আবারো তাগাদা দেয়া হয়েছে। কিন্তু দুই প্রশাসনই এই ব্যাপারে নির্বিকার। আমরা আশা করবো জেলা প্রশাসন ও সিটি কর্পোরেশন আদালতের নির্দেশ বাস্তবায়নে যথাযথ ভূমিকা রাখবে।

মিছিল শেষে চকবাজার মতি কমপ্লেক্সের সামনে আরেক পথসভা অনুষ্ঠিত হয় কাজী রাজেশ ইমরান এর সভাপতিতে।সভাসমুহে আরো বক্তব্য রাখেন বীর মুক্তিযোদ্ধা মো শফি খান,বীর মুক্তিযোদ্ধা সুজাঋদ্দৌলা বাবুল, সোলায়মান খান, শিল্পী মো. ইউনুছ, জসিমউদ্দিন মোবারক, মশিউর রহমান খান ,আবুল বাসার হেলাল, হাসিনা আকতার টুনু, ভাস্কর চৌধুরী,লিটন ব্যানার্জি, হাজী এজাহার মিয়া, চৌধুরী জসিমুল হক, সায়েমউদ্দিন, মো জানে আলম, আবদুল মাবুদ, নারায়ন দাস,মোর্শেদ আলম, মো .জুনায়েদ প্রমুখ। সভা দুটির সঞ্চালনায় ছিলেন আবৃতি শিল্পী দিলরুবা খানম।


Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর