আজ ৪ঠা জ্যৈষ্ঠ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১৮ই মে, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

রামেক হাসপাতালে রোগী ধর্ষণের চেষ্টায় পরিচ্ছন্নতা কর্মী আটক

রাজশাহী মেডিকেল কলেজ (রামেক) হাসপাতালের এক্সরে কক্ষে চিকিৎসাধীন এক রোগীকে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মীর বিরুদ্ধে। সোমবার রাতে নগরীর রাজপাড়া থানা পুলিশের একটি দল অভিযান চালিয়ে ওই পরিচ্ছন্নতা কর্মীকে গ্রেফতার করে। গ্রেফতার পরিচ্ছন্নতা কর্মীর নাম আনিছুর রহমান (৪০)। তার বাড়ি রাজশাহীর বাঘা উপজেলায়।

ভুক্তভোগী কিশোরীর বাবা বাদী হয়ে আনিছুরের বিরুদ্ধে সোমবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে নগরীর রাজপাড়া থানায় ধর্ষণ চেষ্টার ঘটনায় মামলা করেন। তারপরেই পুলিশ অভিযান চালিয়ে আনিছুরকে গ্রেফতার করে।

মামলায় করা অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী কিশোরীর বাড়ি রাজশাহীর চারঘাট উপজেলায়। ভুক্তভোগী ওই কিশোরী ষষ্ঠ শ্রেণীর ছাত্রী। ওই ছাত্রী সম্প্রতি অপহরণের শিকার হয় এবং তাকে গাজীপুর থেকে উদ্ধার করে পুলিশ। এরপরেই কিশোরীর সঠিক বয়স নির্ধারণের জন্য, ধর্ষণ কিংবা ধর্ষণের ফলে সে অন্তঃসত্ত্বা হয়েছে কি না, সেই তথ্য জানতে তাকে গত ৬ ফেব্রুয়ারি রামেক হাসপাতালের ওয়ান স্টপ ক্রাইসিস (ওসিসি) সেন্টারে ভর্তি করে পুলিশ। তার শারীরিক পরীক্ষা শেষে ৯ ফেব্রুয়ারি হাসপাতাল থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। বাড়ি ফিরে ওই কিশোরী পরিবারের সদস্যদের জানায় যে, গত ৮ ফেব্রুয়ারি দুপুরে আল্ট্রাসনোগ্রাফি করতে তাকে যখন তিন নম্বর এক্স-রে কক্ষে ঢোকানো হয়েছিল। এরপরেই সেখানে এক পরিচ্ছন্নতা কর্মী তাকে ধর্ষণের চেষ্টা করে। এরপরেই তার পরিবারের পক্ষ থেকে আনিছুরের বিরুদ্ধে ধর্ষণ চেষ্টার মামলা করা হয়।

নগরীর রাজপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাইদুল ইসলাম বলেন, কিশোরীর বাবা থানায় মামলা দায়েরের পরপরই পুলিশ অভিযান চালায়।এরপর পরিচ্ছন্নতা কর্মী আনিছুরকে গ্রেফতার করা হয়। মঙ্গলবার দুপুরে তাকে আদালতের মাধ্যমে কারাগারেও পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

     এই বিভাগের আরও খবর