আজ ১২ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে নভেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ট্রাইব্যুনাল

মানবতাবিরোধী অপরাধ: সাতক্ষীরার ৪ আসামি কারাগারে


১৯৭১ সালের ১০ অক্টোবর সাতক্ষীরার শ্যামনগর উপজেলার মুন্সীগঞ্জ ইউনিয়নের কদমতলা গ্রামের সুরেন্দ্রনাথকে বাড়ি থেকে তুলে নিয়ে নদীর পাড়ে গুলি করে হত্যার অভিযোগে দায়েরকৃত মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ৪ আসামিকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। একইসঙ্গে আগামী ১১ অক্টোবর মামলার তদন্তের অগ্রগতি বিষয়ে প্রতিবেদন দেয়ার জন্য পরবর্তী দিন ধার্য করেছেন ট্রাইব্যুনাল।

আজ বৃহস্পতিবার (৮ সেপ্টেম্বর) ট্রাইব্যুনালের চেয়ারম্যান বিচারপতি মো. শাহিনুর ইসলামের নেতৃত্বে ৩ সদস্যের বিচারিক প্যানেল এ আদেশ দেন। ট্রাইব্যুনালের অন্য সদস্যরা হলেন- বিচারপতি আবু আহমেদ জমাদার ও বিচারপতি কে এম হাফিজুল আলম। শুনানিতে ছিলেন প্রসিকিউটর মো. মোখলেসুর রহমান বাদল। তার সঙ্গে ছিলেন প্রসিকিউটর সাবিনা ইয়াসমিন খান মুন্নি।

গ্রেফতারকৃতরা হলেন- শ্যামনগর উপজেলার ঈশ্বরীপুর ইউনিয়নের এস এম মহসিন উল মুলক, মুন্সিগঞ্জ ইউনিয়নের জি এম মহিউদ্দিন, মো. ফজর আলী গাজী ও শ্রীফলকাটির আব্দুল কুদ্দুস গাজী। আজ তাদেরকে ট্রাইব্যুনালে হাজির করা হয়। উল্লেখিত চার ব্যক্তির বিরুদ্ধে ২০০৯ সালের ২৬ এপ্রিল মামলা করেন সুরেন্দ্রনাথের মেয়ে চন্দনা রাণী।

এর আগে মানবতাবিরোধী অপরাধের মামলায় সাতক্ষীরার শ্যামনগরের ১০ জনের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন আন্তর্জাতিক অপরাধ ট্রাইব্যুনাল। তারই আলোকে ওই চার আসামিকে গ্রেপ্তার করা হয় বলে জানান প্রসিকিউটর।

প্রসিকিউশন জানায়, আসামিরা পালিয়ে যেতে পারেন- এমন আশঙ্কায় বাকি আসামিদের নাম প্রকাশ করা হয়নি।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর