আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কর্নাটকের উদুপি জেলার একটি কলেজে হিজাব পরার কারণে ঢুকতে পারেননি এই মুসলিম ছাত্রীরা

ভারতে হিজাব বিতর্ক: কর্নাটকে হিজাব পরে কলেজে আসার জন্য ৫৮ জন মুসলিম ছাত্রী সাময়িক বহিষ্কার


ভারতের কর্নাটক রাজ্যে মুসলিম ছাত্রীদের ক্লাসে হিজাব পরে আসা বন্ধের ইস্যু নিয়ে সৃষ্ট পরিস্থিতি দিনকে দিন আরো ঘোলাটে হয়ে উঠছে।

একদিকে যেমন রাজ্যের পুলিশ ও সরকারি কর্তৃপক্ষ এই ইস্যুতে তাদের অবস্থান আরো কঠোর করছে বলে ইঙ্গিত পাওয়া যাচ্ছে, সেইসাথে হিজাব পরে ক্লাসে আসার অধিকারের দাবিতে মুসলিম ছাত্রীদের বিক্ষোভও ছড়িয়ে পড়ছে।

রাজ্যের শিভামোগ্গা জেলার শিরালাকোপ্পার একটি সরকারি কলেজে হিজাব পরে আসায় ৫৮ জন ছাত্রীকে সাময়িকভাবে বহিসষ্কার করেছে কলেজ কর্তৃপক্ষ।

তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ যে তারা সরকারি নির্দেশ অমান্য করে হিজাব পরে কলেজে এসেছিল এবং কলেজ কর্তৃপক্ষের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ দেখাচ্ছিল।

এই সাসপেনশনের নির্দেশ শুক্রবার দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু আজ শনিবারও ওই ছাত্রীরা আবারও হিজাব পরেই কলেজে ঢোকার চেষ্টা করে। সেখানে তারা স্লোগান দেয় যে হিজাব পরা তাদের অধিকার। যদিও তাদের কলেজে ঢুকতে দেওয়া হয় নি।

অন্য একটি শহরে বিক্ষোভ দেখানোর অভিযোগে ১০ জন মুসলিম ছাত্রীর নামে পুলিশ এই প্রথমবারের মতো মামলা রুজু করেছে।

মামলার ঘটনা ঘটেছে তুমাকুরু জেলার একটি সরকারি প্রি ইউনিভার্সিটি কলেজে। ওই ছাত্রীরা হিজাব পরে কলেজে ঢোকার চেষ্টা করছিলেন, যখন পুলিশ তাদের পথ আটকায়। ওই ছাত্রীরা তাদের প্রিন্সিপাল এবং শিক্ষকদের কাছ থেকে জবাব চাইছিলেন কেন হিজাব পরে তাদের কলেজে ঢুকতে দেওয়া হবে না।

এই ঘটনার পরেই কলেজের প্রিন্সিপাল পুলিশের কাছে ওই ছাত্রীদের নামে অভিযোগ দায়ের করেন, যার ভিত্তিতে বেআইনি জমায়েত ও একজন সরকারি অফিসারের জারি করা নির্দেশ অমান্য করার ধারায় ১০ জন ছাত্রীর বিরুদ্ধে এফ আই আর দায়ের করেছে পুলিশ।

কলেজটির ২০০ মিটার এলাকা জুড়ে ১৪৪ ধারায় নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর