আজ ১২ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৭শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

ব্রিজের অভাবে কয়েকটি প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীদের ও এলাকাবাসীর দুর্ভোগের শেষ নেই


এস. এ. নয়ন, রাঙ্গুনিয়া প্রতিনিধিঃ চট্টগ্রামের রাঙ্গুনিয়া উপজেলার ১ নং রাজানগর ইউনিয়নের ৬নং ওয়ার্ডের শিয়ালবুক্কা এলাকার রাজার হাট -রাণীর হাট সংযোগ সড়কের পাশে ইছামতী নদীর উপর একটি ব্রিজের অভাবে এলাকাবাসী ও কয়েকটি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্রছাত্রীদের ও এলাকাবাসীর দুর্ভোগের শেষ নেই। ব্রিজ না থাকায় তাদের প্রতিদিন ঝুঁকিপূর্ণ নড়বড়ে সাঁকো দিয়ে যাতায়াত করতে হয়।

ইছামতী নদীর দক্ষিণ পাড়ে খন্ডলিয়া পাড়া মাদ্রাসা, ফুলবাগিচা মাদ্রাসা, ফুলবাগিচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাজাভূবন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় রাজাভূবন উচ্চ বিদ্যালয়, আর উত্তরে রাণীর হাট আর. এ. বি. এম. উচ্চ বিদ্যালয়, ১নং রাজানগর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়, রাণীর হাট ডিগ্রি কলেজ রয়েছে। খালের দুই পাশের এসব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের প্রায় ১ হাজার ছাত্রছাত্রী এই ঝুঁকিপূর্ণ সাঁকো দিয়ে প্রতিদিন যাতায়াত করে। এছাড়াও খালের উত্তর পাড়ের রাণীর হাট বাজার খালের দক্ষিণ পাড়ের রাজার হাট বাজার। এই এলাকার প্রায় ১০ হাজার মানুষের যাতায়াতের পথ এই অস্থায়ী নড়বড়ে সাঁকো। শিয়ালবুক্কা বাসী ও স্থানীয়দের অর্থায়নে এ সাঁকো প্রতিবছর নির্মাণ করা হয়। এলাকাবাসী ও শিক্ষার্থীদের দাবি এই স্থানে একটি ব্রিজ নির্মাণ করলে তাদের দুর্ভোগ দূর হবে।
রাজাভূবন উচ্চ বিদ্যালয়ের দশম শ্রেণির ছাত্র রিমন নাথ, ও নবম শ্রেণির ছাত্রী পুর্ণিমা নাথ জানান, বর্ষাকালে খালে পানি বৃদ্ধি পেলে ইছামতীর ওপর নির্মিত সাঁকোটি পানিতে ভেসে যায়। তাই অনেক কষ্টে নৌকায় যাতায়াতের মাধ্যমে তাদের স্কুলে যেতে হয়। এখানে একটি ব্রিজ হলে তাদের স্কুলে আসা-যাওয়া করতে সহজ হতো।

ফুলবাগিচা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক মোহাম্মদ লোকমান হোসেন জানান, সাঁকোটি দিয়ে প্রতিদিন সহস্রাধিক স্কুল মাদ্রাসার শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী চলাচল করে। তাদের দীর্ঘদিনের দাবি ইছামতী নদীর ওপর একটি ব্রিজ নির্মাণের। এখানে একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হলে হাজারো মানুষের যাতায়াতে কষ্ট দূর হবে।

কৃষক মোহাম্মদ তাহের জানান, ব্রিজ না থাকায় ইছামতী নদীর দুই পাশে উৎপাদিত নানা কৃষিপণ্য আনা-নেওয়া কষ্টকর হয়ে পড়েছে। তাছাড়াও বর্ষাকালে নৌকায় খাল পার হতে গিয়ে অনেক দুর্ঘটনার শিকার হতে হয়।

স্থানীয় ইউপি সদস্য মোহাম্মদ ইউসুফ আলী জানান, ওই স্থানে ইছামতী নদীর উপর একটি ব্রিজ নির্মাণ করা হলে এলাকাবাসীর দীর্ঘদিনের দুর্ভোগ দূর হবে। এ ব্যাপারে তিনি সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ ও স্থানীয় এম. পি ও তথ্য মন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন।

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী প্রকৌশলী (এলজিইডি) জানান, এলাকাবাসী লিখিত আবেদন করলে ব্রিজের প্রয়োজনীয়তা যাচাই করে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে প্রস্তাব পাঠানো হবে।

রাঙ্গুনিয়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার বলেন, ঘাটচেক – রাণীরহাট সংযোগ সড়কের পাশে ফুলবাগিচা এলাকায় ইছামতী নদীর খালের ওপর ব্রিজ নির্মাণ খুবই জরুরি। এ ব্যাপারে ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হবে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর