আজ ১৬ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ১লা অক্টোবর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

বরমা কলেজ জিবি অভিভাবক প্রতিনিধি নির্বাচন সম্পন্ন


সৈয়দ শিবলী ছাদেক কফিলঃ বিপুল উৎসাহ, উদ্দীপনা, জৌলুসপূর্ণ ও শান্তিপূর্ণভাবে চট্টগ্রাম চন্দনাইশের বরমা ডিগ্রি কলেজ গভর্নিং বডি (জিবি) অভিভাবক শ্রেণির নির্বাচন সম্পন্ন হয়েছে।
১৭ মে (মঙ্গলবার) অনুষ্ঠিত এ নির্বাচনে অভিভাবক শ্রেণির ভোটার ছিল ১৭১৭ জন। এতে প্রায় ১৭ শতাংশ ভোট গ্রহণ হয়।

১৯৮৪ খ্রিস্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত এ মহাবিদ্যালয়ে নিয়মিত জিবি গঠন বা নির্বাচন হলেও অভিভাবক শ্রেণির প্রতিদ্বন্দিতাপূর্ণ নির্বাচন হিসেবে এটি দ্বিতীয়। ইতোপূর্বে দু’দশকেরও বেশী সময় আগে প্রথম প্রতিদ্বন্দ্বিতাপূর্ণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছিল। অভিভাবক শ্রেণির ৩ পদে এবারে সর্বমোট ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। ছাত্র-ছাত্রীদের অভিভাবকরা সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৪ পর্যন্ত সারিবদ্ধভাবে লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট প্রদান করেন।
স্থানীয় (চট্টগ্রাম-১৪ আাসনের) জাতীয় সংসদ সদস্য ও কলেজ জিবির সাবেক সভাপতি আলহাজ্ব নজরুল ইসলাম চৌধুরী সহযোগিতায়, কলেজ গভর্নিং বডির সভাপতি ও উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা নাছরীন আকতার এবং কলেজের অধ্যক্ষ ও প্রিজাইডিং অফিসার কৃষিবিদ মোহাম্মদ জাহাঙ্গীর আলমের সার্বিক তত্বাবধানে সুষ্ঠু ও সুশৃঙ্খলভাবে নির্বাচন সম্পন্ন হয়।

নির্বাচন চলাকালে পরিদর্শন করেন চন্দনাইশের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ও সহকারী কমিশনার (ভূমি) গালিব চৌধুরী। স্থানীয় সাংবাদিকরাও ভোটগ্রহণ পক্রিয়া ও পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করেন। এতে মো. লোকমান হাকিম ১৪৪ ভোট পেয়ে প্রথম, মো. সাইফুদ্দিন মিন্টু ১৩১ ভোট পেয়ে দ্বিতীয় ও জসীম উদ্দিন ১১৭ ভোট পেয়ে তৃতীয় হয়েছেন।

ইতোপূর্বে প্রতিষ্ঠাতা শ্রেণিতে শহীদুল আজম কাজমী ও দাতা শ্রেণিতে মাহমুদ বিন কাসেম বিনাপ্রতিদ্বন্দিতায় নির্বাচিত হন। ১৪ মে শিক্ষক শ্রেণির ৩ পদে নির্বাচিত হন মুজিবুল হক চৌধুরী, মো. খালেদুর রহমান ও সালমা আহসান। শিক্ষক পরিষদের সম্পাদক নির্বাচিত হন মোহাম্মদ আলী। এছাড়াও মহিউদ্দীন পেয়েছেন ১০৪ ভোট, ফরিদ উদ্দীন আহমদ পেয়েছেন ৮০ ভোট, দিলীপ ভট্টাচার্য্য পেয়েছেন ৭০ ভোট, মোরশেদা বেগম পেয়েছেন ৪২ ভোট, মোজাম্মেল হক তালুকদার পেয়েছেন ১৫ ভোট ও শামীমা আকতার পেয়েছেন ০৯ ভোট। মোট ভোট গ্রহণ হয়েছে ৩৫৩, তন্মধ্যে বাতিল হয়েছে ৫ ব্যালট।

এসময় ভোট গ্রহণ ও গণনার দায়িত্বে ছিলেন মোহাম্মদ আলী সহকারী প্রিজাইডিং অফিসার মো. আবুল মনসুর, রবিউল ইসলাম, পোলিং অফিসার দেবানন্দ বসু, কামরুল হাসান ও হোসেন আলী। তাঁদের সবাই এ কলেজের শিক্ষক। চন্দনাইশ থানা পুলিশের এসআই হিরো বিকাশ, এএসআই রিনাল চাকমা, ছোটন রায়, নিতেন চাকমা ও তাদের টিম। অফিসিয়াল কাজে সহযোগিতা করেন শরীরচর্চা শিক্ষক কাজী মাহমুদুর রহমান, লাইব্রেরিয়ান সৈয়দ আসেকুল ইসলাম, কম্পিউটার অপারেটর মিন্টু দে।

কলেজের বাহিরে প্রার্থী এবং ভোটার ছাড়াও দুপুরে উৎসুক গণমানুষের ভীড় দেখা যায়। বরমা কলেজটি জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়, চট্টগ্রাম শিক্ষাবোর্ড ও কারিগরি শিক্ষাবোর্ডের অধিভুক্ত।

এতে ৪ বিষয়ে অনার্স কোর্স চালু প্রক্রিয়াধীন রয়েছে।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর