আজ ৯ই আশ্বিন, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ, ২৪শে সেপ্টেম্বর, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ

কর্ণফুলী উপজেলায় পরিবেশ বিষয়ক মতবিনিময় সভা’ অনুষ্ঠিত


কর্ণফুলী প্রতিনিধি: চট্টগ্রাম কর্ণফুলী উপজেলা প্রশাসন ও উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তর এবং কর্ণফুলী উপজেলা ডেইরী ফারমার্স এসোসিয়েশন যৌথ উদ্যোগে আয়োজন করেছে প্রাণিসম্পদ প্রদর্শনী মেলা ২০২২। বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) দিনব্যাপী উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের সার্বিক তত্ত্বাবধানে প্রদর্শনী মেলা অনুষ্ঠিত হয় উপজেলা প্রাঙ্গণে।

মেলায় উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে প্রান্তিক খামারিরা তাদের গৃহপালিত পশু, পাখি,নিয়ে আসেন প্রদর্শনীর জন্য ! মেলায় খামারিরা তাদের খামারে মুরগির ডিম ও গরুর দুধ দর্শনার্থীদের মাঝে ফ্রিতে দুধ ও ডিম পরিবেশন করা হয়।

কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা শাহিনা সুলতানা এর সভাপতিত্বে মেলা প্রাঙ্গণে খামারিদের বিভিন্ন পরিবেশ সম্পর্কে ধারনা দেয়া জন্য,পরিবেশ বিষয়ক মতবিনিময় সভা আয়োজন করা হয়। মতবিনিময় সভায় প্রধান অতিথি ছিলেন, পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক জনাব মুফিদুল আলম, প্রধান বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জনাব ফারুক চৌধুরী।
বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) শিরিন আক্তার, বিশেষ বক্তা হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, কর্ণফুলী ডেইরি ফার্ম এসোসিয়েশন সভাপতি, জনাব নাজিম উদ্দিন হায়দার।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন পরিবেশ অধিদপ্তরের উপ-পরিচালক ফেরদৌস আনোয়ার, উপজেলা প্রাণিসম্পদ অধিদপ্তরের কর্মকর্তা
রুম্মন তালুকদার, কর্ণফুলী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা দুলাল মাহমুদ।

কর্ণফুলী উপজেলা ডেইরী ফারমার্স এসোসিয়েশন পক্ষে আলহাজ্ব জাফর ইকবাল, জালাল উদ্দিন (রোকন) মনোয়ারা বেগম, মতবিনিময় সভায় খামারিরা খামার পরিচালনা কালে পরিবেশ অধিদপ্তর থেকে নানাভাবে বাধা বিপত্তির সম্মুখীন হন এই বিষয় তাদের সমস্যা কথা তুলে ধরেন।

প্রধান অতিথি পরিবেশ অধিদপ্তরের পরিচালক, মুফিদুল আলম তার বক্তব্যের মাধ্যমে বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য খামারিদের চেষ্টা করেন। জনাব মুফিদুল আলম চীনের একটি প্রবাদ বাক্য এর মাধ্যমে তার বক্তব্য শুরু করেন, “পৃথিবীটা আমাদের কাছে একটা ঋণের মত,
যা আমরা আমাদের পূর্ববর্তী প্রজন্ম থেকে পেয়েছি, এই পৃথিবীটা সুদ সহকারে বা যতটুকু পেয়েছি ততটুকু আমাদের উচিত আমাদের পরবর্তী প্রজন্মের হাতে তুলে দেওয়া।”

আজকে যদি আমরা এই পরিবেশের ভারসাম্য নষ্ট হওয়া থেকে রক্ষা করতে না পারি তাহলে কিভাবে একটি সুস্থ সুন্দর পরিবেশ চিন্তা করতে পারব ! ডেইরি ফার্ম সহ নানা শিল্প কারখানা থেকে নির্গত দূষিত পানি প্রতিনিয়ত যে পরিমাণ খাল বা নদীতে পতিত হয় পরিবেশ দূষণ হচ্ছে তা মারাত্মক ঝুঁকির মধ্যে পড়েছে পরিবেশ।

নদী-খাল গুলো হল পরিবেশের জন্য শিরা-উপশিরার মত। আমাদের শরীরের শিরা উপশিরা যদি কোন কারণে বাধাগ্রস্ত হয় শরীর যেমন অকেজো হয়ে পড়ে ঠিক তেমনি খাল ও নদী যদি বাধাগ্রস্ত হয় পরিবেশ বিপর্যয়ের মুখে পড়বে।
উন্নয়ন বা শিল্পীর বিপক্ষে নয় পরিবেশ অধিদপ্তর। পরিবেশ অধিদপ্তর পরিবেশের ভারসাম্য রক্ষা করে সবাইকে ব্যবসা প্রতিষ্ঠান পরিচালনার জন্য অনুরোধ জানান। বক্তব্যে তিনি আরও বলেন গোমূত্র থেকে যে পরিমাণ মিথেন গ্যাস উৎপাদন হয় তা পানি বা বায়ুর সাথে মিশে গিয়ে পরিবেশ ধ্বংস করছে।
এই গোমূত্র যদি বৈজ্ঞানিক উপায়ে আমরা সংস্কার করতে পারি তাহলে একদিকে যেমন রক্ষা পাবে পরিবেশ তেমনি আমরা আমাদের ক্ষেত্র জমিতে ব্যবহার করে জৈব সারের ঘাটতি মেটাতে পারব।

“খামারি ও অন্যান্য বক্তাদের প্রশ্ন উত্তরে মুফিদুল আলম বলেন, ইউনিয়ন ভিত্তিক ছোট ছোট কমিটি করে বর্জ্যগুলো কিভাবে নিষ্কাশন করা যায় তা আপনারা নির্ণয় করুন, প্রয়োজনীয় যা সহযোগিতা দরকার হবে তা আমরা দিতে প্রস্তুত।”

কর্ণফুলী উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জনাব ফারুক চৌধুরী বলেন, “যে পরিবেশ বিপর্যয় ঘটছে তা অনুধাবন করার জন্য বিশেষজ্ঞ হওয়ার প্রয়োজন নেই। সাধারণ মানুষ বুঝতে পারে এখানে পরিবেশগত সুশাসন নেই। শর্ষের মধ্যে ভূত থাকলে তা তাড়ানো যায় না।আমাদের প্রত্যেককে নিজ জায়গা থেকে সচেতনতা বৃদ্ধি করে পরিবেশ রক্ষায় সচেষ্ট হতে হবে।”

উল্লেখ্য নবগঠিত কর্ণফুলী উপজেলা চট্টগ্রাম জেলার মধ্যে ডেইরি ফার্মের জন্য বিখ্যাত। কর্ণফুলী উপজেলা ছোট-বড় প্রায় ৯০০ বেশি ডেইরি ফার্ম রয়েছে বলে জানান কর্ণফুলী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জনাব শাহিনা সুলতানা।


Leave a Reply

Your email address will not be published.

     এই বিভাগের আরও খবর